শিরোনামের মধ্যে থাকা তিনটি নামের মধ্যে ১ম দুইটি প্রায়ই সবাই মনে হয় চিনে গেছেন।একটি হল পিচ্চি পোলাপাইনের Craze ডোরেমন ও আরেকটা ডোরেমনের প্রিয় খাবার ডোরা কেক।তবে তৃতীয়টি হয়তো অনেকেই বুঝতে পারছেন না।এটি আমাদের জাতীয় পশু Royal Bangle Tiger…… আসলে ডোরেমন নামক বিড়ালের তোড়জোড়ে আমাদের নিরীহ বাঘটি ইদানীং নিতান্তই অসহায়।

অর্থাৎ বাঘ থেকে বিড়াল হয়ে যাচ্ছে আমাদের ছোট্ট প্রজন্ম!!!রাগ করবেন না, পড়তে থাকুন বুঝতে পারবেন।

আসুন প্রথমেই পরিচিত হয়ে নেই ডোরেমন ও তার সহ-চরিত্র গুলো সম্পর্কে….

ডোরেমন
ডোরেমন

ডোরেমন: এ হল বিড়ালের মত দেখতে 22nd শতাব্দীর রোবট।

  • জন্মদিন: 03.09.2112
  • উচ্চতা: 129.3cm
  • ওজন: 129.3kg

সে বিড়াল হলেও ভয় পায় ইঁদুর।কারণ, তার কান দুটো ইঁদুর খেয়ে নিয়েছে।তার রয়েছে একটি 4D পকেট।যেখানে সে তার অসাধারণ গ্যাজেট গুলো রাখে।ডোরেমনকে “নোবিতা নোবি” এর নাতি 22nd শতাব্দী থেকে এ সময়ে পাঠিয়েছে। “নোবিতা” কে সাহায্য করার জন্য।

নোবিতা নোবি
নোবিতা নোবি

নোবিতা: ইনি হচ্ছেন গল্পের একজন প্রধান চরিত্র।পুরো নাম “নোবিতা নোবি”। দায়িত্বজ্ঞানহীন একটি ছেলে। যে সবসময়ই পরীক্ষায়  “০” (শূন্য) পায়।প্রচণ্ড মিথ্যে কথা বলে এবং ডোরেমনের সাহায্য ছাড়া কিছুই পারে না।তার প্রতিদিনের রুটিন-

  • দেরি করে স্কুলে যাওয়া
  • শিক্ষকের কাছে বকা খাওয়া
  • নাম্বার কম পাওয়ার জন্য মায়ের কাছে বকুনি খাওয়া
  • জিয়ানের কাছে মার খাওয়া
  • সুজুকাকে বিরক্ত করা
  • রাতের খাবার পর্যন্ত ঘুমানো।পরদিন আবার একই রুটিন….

অন্য চরিত্র গুলোর একটা সংক্ষিপ্ত বর্ণনা নিচে দেয়া হল:

বাম থেকে ডোরামি, সুজুকা, সুনিয়ো, জিয়ান ও ডেকিসুগি
বাম থেকে ডোরামি, সুজুকা, সুনিয়ো, জিয়ান ও ডেকিসুগি

ডোরামি: ডোরেমনের বোন।এর কিন্তু কান আছে!!

সুজুকা: প্রধান মেয়ে চরিত্র। নোবিতার ভবিষ্যৎ স্ত্রী।

সুনিয়ো: মিথ্যাবাদী, প্রতারক, অহংকারী ছেলে।

জিয়ান: মোটা, শক্তিশালী, অন্যের উপর রাগ দেখানো ও অসাধারণ গানের গলার অধিকারী আমেরিকান নিগ্রো।

ডেকিসুগি: সবচেয়ে বুদ্ধিমান ও ভাল ছাত্র।সবদিক থেকে একজন আদর্শ ছেলে।

হয়তোবা খেয়াল করেছেন যে চরিত্র গুলোর নেগেটিভ আচরণ গুলো বেশি।সবাই তো বুঝি।কিন্তু তাও কিছু করতে পারিনা কেন? কীভাবে পারবো বলুন, বাঙালী হিসেবে আমাদের আজ তো নিজের বলে কিছুই নেই।নিজেদের সংস্কৃতির থেকে দূরে থাকতে থাকতে আমরা কেমন জানি সংস্কৃতহীন বা মিশ্র সংস্কৃতির একটা জাতি হয়ে গেছি।রয়েল বেঙ্গল টাইগারের নখ যেন কেমন ভোতা হয়ে গেছে।

আরেকটু জানব এ সম্পর্কে হালুম-২ তে….