গুগোল জায়েন্ট নিয়ে এল ইন্টারনেট সেবা। অবিশ্বাস্য হলেও সত্যি! জানি প্রথমেই আপনারা প্রশ্ন করবেন নিশ্চয়ই ডাউনলোড স্প্রিড মারাত্তক? আরে ভাই, শুধু মারাত্তক ক্যান? এর চেয়ে বেশী থাকলে সেটা কন? 😀

  • ডাউনলোড স্প্রীড ১ গিগাবিট/সেকেন্ড। অর্থ্যাৎ ১২৫ মেগাবাইট প্রতি সেকেন্ডে!!

আলোর মত দ্রুত এই ইন্টারনেট সেবা গুগল ক্যানসাস শহরে বসাচ্ছে।গুগলের আবিষ্কৃত নতুন সেবা প্রাথমিকভাবে ক্যানসাস শহরে প্রদান করা হবে সেপ্টেম্বর মাসে,পরবর্তীতে অন্যান্য স্থানে।  ইন্টারনেটের সাথে টেলিভিশন এর জন্য গুগলের ইন্টারনেট ব্যবহার করা যাবে। এজন্য আলাদাভাবে অর্থ গুনতে হবে না গ্রাহকদের।লাইভ চ্যানেল,ইউটিউব,রেকর্ড করা প্রোগ্রাম এমন কি চাহিদামত অনুষ্ঠান দেখা যাবে।গুগোলের এই অসাধারন সেবার দ্বারাই বোঝা যাচ্ছে তথ্য প্রযুক্তির দুনিয়াতে এক নতুন মাত্রা যুক্ত হতে যাচ্ছে।
গুগল ফাইবার ১০০টি নের্টওয়ার্ক এর পাশাপাশি টিভি প্যাকেজ, ১ গিগাবিট/সেকেন্ড স্পীড সমৃদ্ধ ইন্টারনেট এবং ১ টেরাবাইট ক্লাউড স্টোরেজ দিচ্ছে মাত্র 120 Doller($)। এই প্যাকেজ এর সাথে অনেক জনপ্রিয় প্রতিষ্ঠান যুক্ত হতে যাচ্ছে  Comcast Corp’s NBC Universal, Discovery Communications and Viacom Inc, Liberty Media’s Starz সহ আরো প্রতিষ্ঠান।

শুধুমাত্র ইন্টারনেট সেবা গ্রহণ করতে হলে প্রতি মাসে ৭০ ডলার পকেট থেকে দিতে হবে। ডাউনলোড স্পীড যথারীতি থাকবে ১ গিগাবিট(১০০০ মেগাবাইট) , সংযোগ গ্রহণ করতে 300 Doller($) লাগবে যেটা গ্রাহকের প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতির জন্য।গুগল ফাইবারের সংযোগ ব্যবহার করার জন্য  গুগল আপনাকে  একটি “Nexus 7 tablet”  গিফট (বিনামূল্যে) দেওয়া হবে।

Google Fiber Modem

গুগল ফাইবার কানেকশন আপনি প্রতিবেশীর সাথে শেয়ার করতে পারবেন তবে এজন্য আপনার ৫০ জন প্রতিবেশীকে গুগল ফাইবার ইনস্টল করার জন্য 10 Doller($) করে দিতে হবে।এই ভিডিওটি দেখুন গুগোল ফাইবারের একটি ডেমো ❗


অপটিক্যাল ফাইবারের চেয়ে ২০ গুণ(20x) দ্রুত এই সেবাটি পেতে বিশ্বের অন্যান্য দেশকে আরো অনেকটা সময় অপেক্ষা করতে হবে। বাংলাদেশের মত তৃতীয় বিশ্বের দেশে এই সেবা পেতে আরো বহু সময় অপেক্ষা করতে হবে। ক্যানসাস শহরের মানুষের ভাগ্য আছে বলতেই হয়!

গুগোল ফাইবারের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজঃ Google Fiber