Humpty Dumpty ছড়াটি সেই প্লে গ্রুপে থাকতে পরেছি,আপনারাও নিশ্চয়ই পড়েছেন?এই ছড়াটির পিছনের কথাটি আজ আপনাদের জানাব।

Humpty Dumpty ছড়ার সঙ্গে জড়িয়ে আছে ইংরেজদের এক গৃহযুদ্ধের কাহিনী। ওই যুদ্ধে ব্যবহৃত একটি কামানের নাম ছিল Humpty Dumpty। সেই Humpty Dumpty ছিল বিশাল আকারের। যুদ্ধ চলাকালে কোলচেস্টার দখলের সময় এই কামানটি কাজে লাগানো হয়। ইংরেজদের ওই গৃহযুদ্ধটা শুরু হয় ১৬৪২ সালে, পার্লামেন্টারিয়ান ও রয়ালিস্টদের।যারা সংসদীয় পদ্ধতি চায় আর যারা রাজতন্ত্র টিকিয়ে রাখতে চায় তাদের মধ্যে।

যুদ্ধে স্বাভাবিকভাবেই প্রথম চার্লস ছিলেন রাজতন্ত্রীদের পক্ষে। যুদ্ধের সময় একেক এলাকায় একেক দল প্রভাব বিস্তার করে রাখে। কোলচেস্টারে পার্লামেন্টারিয়ানেদের প্রভাব বেশি থাকলেও রাজতন্ত্রীরা এটি দখল করে ফেলে ১৬৪৮ সালে। দখল করার পরপরই দেয়ালঘেরা এক সুরক্ষিত দূর্গে পরিণত করে ফেলে একে। ওই দেয়ালের লাগোয়া ছিল সেন্ট মেরির চার্চ। রাজতন্ত্রীরা বুদ্ধি করে ওই চার্চ সংলগ্ন দেয়ালের উপর হামটি ডামটি কামানটাকে বসায়। অনেক বড়সর ছিল কামানটি। ফলে বসাতে অনেক কসরৎ করতে হয়েছে।

কিন্তু একদিন পার্লামেন্টারিয়ানেদের এক গোলার আঘাতে দেয়ালটি বিধ্বস্ত হয়ে পড়ে। হামটি ডামটিও সেখান থেকে গড়িয়ে পরে যায় মাটিতে। রাজার পদাতিক আর ঘোড়সওয়ার বাহিনীর লোকজন কামানটি আবার জোড়া লাগিয়ে দেয়ালের অন্যদিকে তোলার চেষ্টা করেছিল। কিন্তু কামানটি এতো ভারি ছিল যে তাদের মিলিত চেষ্টাতেও তা সম্ভব হয় নি। রাজতন্ত্রীরা এই যুদ্ধে হেরে যায়। অস্ত্র নামিয়ে রেখে দূর্গের দরোজা খুলে বেরিয়ে আসে তারা, আত্মসমর্পণ করে পার্লামেন্টারিয়ানেদের কাছে। কোলচেস্টার ছিল খুবই গুরুত্বপূর্ন একটা শহর। এটি হাতছাড়া হওয়ায় রয়ালিস্টদের পতন তরান্বিত হয়। যুদ্ধ শেষ হয় ১৬৪৯ সালে।