বাংলা কবিতার ইতিহাসে এক অবিস্মরণীয় নাম “জীবনানন্দ দাস”।আসুন আজ তঁার সম্পর্কে কিছু জেনে নিই।

জন্ম : জীবনানন্দ দাশ ১৮৯৯ খ্রীস্টাব্দে বরিশালে জন্মগ্রহণ করেন।তঁার পিতার নাম সত্যানন্দ দাশ এবং মায়ের নাম কুসুম কুমারী দাশ।তার মা ও ছিলেন একজন স্বভাব কবি।

শিক্ষাজীবন: জীবনানন্দ দাশ বরিশাল ব্রজমোহন স্কুল, ব্রজমোহন কলেজ ও কলকাতা প্রেসিডেন্সি কলেজে শিক্ষালাভ করেন।তিনি ১৯২১ সালে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এম.এ ডিগ্রী লাভ করেন।

কর্মজীবন: এম এ ডিগ্রী লাভের পর তিনি অধ্যাপনা শুরু করেন এবং দীর্ঘকাল অধ্যাপনা করেন।

লেখার ধরন: জীবনানন্দ দাশ প্রধানত আধুনিক জীবন চেতনার কবি হিসেবে পরিচিত ।বাংলার প্রকৃ্তির রুপ বৈচিত্রে কবি নিমগ্নচিত্ত।কবির দৃষ্টিতে বাংলাদেশ এক অনন্য রুপসী।

উল্লেখযোগ্য রচনাসমুহ : তার রচিত প্রকাশনাগুলোর কয়েকটি এখানে দেওয়া হল ঃ

  • ঝরা পালক
  • ধূসর পান্ডুলিপি
  • বনলতা সেন
  • মহাপৃথিবী
  • সাতটি তারার তিমির
  • কবিতার কথা
  • রুপসী বাংলা
  • বেলা অবেলা কালবেলা
  • মাল্যদান
  • সুতীর্থ

মৃ্ত্যু: ১৯৫৪ সালের ১৪ অক্টোবর তিনি কলকাতায় এক ট্রাম দুর্ঘটনায় আহত হন এবং ২২ অক্টোবর মৃত্যুবরন করেন।